নবজাতক দেখে আঁতকে উঠলেন চিকিৎসক, নিতে চাচ্ছেন না মা-বাবা

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ

নাক ও চোখ নেই। মুখের আকারও বিকৃত। মাথার ওপর বড় আকারের একটি টিউমার। বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে এমনই বিকৃত মুখাকৃতির এক নবজাতকের জন্ম হয়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন হাসপাতালের এ্যানেসথেসিয়া চিকিৎসক ডা. সজল পান্ডে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বলেন, দুঃখের বিষয় হচ্ছে অদ্ভুত আকৃতির নবজাতক দেখে তার মা-বাবাও গ্রহণ করতে চাননি। তবে আমরা তাদের অনুরোধ করেছি সন্তান গ্রহণ করার জন্য। বর্তমানে নবজাতক ওয়ার্ডে রেখে শিশুটিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

ভোলার কলাকোপা গ্রামের রিকশাচালক মো. জাফর এবং তার স্ত্রী মুন্নী বেগম নবজাতকের বাবা-মা। তাদের ৬ বছর বয়সের আরো একটি ছেলে রয়েছে।

হাসপাতাল থেকে জানানো হয়েছে, বুধবার শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন মুন্নী। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে শিশুটি ভূমিষ্ট হয়। এ সময়ে নবজাতকটির অদ্ভুদ চেহারা দেখে চিকিৎসক ও নার্সরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

এ বিষয়ে ভূমিষ্ঠ হওয়া নবজাতকের বাবা জাফর জানিয়েছেন, সবাই সুস্থ হলে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। এর বেশি কিছু বলতে চাননি তিনি।

নিউজ সোর্স : নবজাতক দেখে আঁতকে উঠলেন চিকিৎসক, নিতে চাচ্ছেন না মা-বাবা

Leave A Reply

Your email address will not be published.