মমতার ভার্চুয়াল সমাবেশে ৫০ লাখ কর্মীর অংশগ্রহণ চায় তৃণমূল

মমতার ভার্চুয়াল সমাবেশে ৫০ লাখ কর্মীর অংশগ্রহণ চায় তৃণমূল

তৃতীয়বারের জন্য নবান্ন দখলের পর প্রথমবার ২১ জুলাই শহীদ দিবসের সমাবেশ হচ্ছে। অথচ করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে বৃহৎ জনসমাগম নয়, ভার্চুয়াল সমাবেশের উপরেই নির্ভর করতে হচ্ছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বকে। তবে সেই ভার্চুয়াল সমাবেশে রেকর্ডসংখ্যক কর্মীর অংশগ্রহণ চাইছে তৃণমূল।

আগামী বুধবার ২১ জুলাইয়ের শহীদ দিবসের কর্মসূচিতে অন্তত ৫০ লাখ কর্মী-সমর্থকদের অংশগ্রহণ চাইছে কালীঘাট। রবিবারই দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সেই মর্মে নির্দেশ চলে গেছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের কাছে। নির্দেশে বলা হয়েছে, ২১ জুলাই দু’দফায় বুথ স্তরের কর্মীরা শহীদ দিবসের কর্মসূচি পালন করবেন। যেমন নির্দেশ দেওয়া হয়ছে, সেই ভাবেই শহীদ দিবস পালন করতে হবে।

মাল্যদান এবং পরে নেত্রীর বক্তৃতা শোনার ও শোনানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এলাকার বিধায়কদের। প্রত্যেকটি বুথে যাতে দলীয় কর্মসূচি পালন করা হয়, সে ব্যাপারে কড়া নজর রাখতে হবে তাদের। দায়িত্ব পেয়ে অনেক বিধায়ক বুথ কমিটির সভাপতিদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ইতিমধ্যে সেই নির্দেশ পাঠিয়ে দিয়েছেন। কিছু ক্ষেত্রে আবার বুথ স্তরে আয়োজিত ওই দলীয় কর্মসূচির ছবি এবং ভিডিও তাদের দফতরে পাঠাতে বলেছেন বিধায়করা। যেখানে তৃণমূল বিধায়ক নেই, সেখানে ওই দায়িত্ব পালন করতে বলা হয়েছে জেলা সভাপতি তথা ব্লক সভাপতিদের। কালীঘাট থেকে পাঠানো নির্দেশে আরও বলা হয়েছে, করোনা বিধি মেনে প্রত্যেক বুথে যাতে কমপক্ষে ৫০ জন কর্মী উপস্থিত হয়ে দলীয় কর্মসূচিতে অংশ নেন, সেই দায়িত্ব নিতে হবে প্রত্যেক বুথ সভাপতিকে।

১৯৯৩ সালের ২১ জুলাই কলকাতায় সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের একটি মিছিলে ১৩ জনকে গুলি করেছিল পুলিশ। সেই ঘটনা স্মরণে প্রতি বছর পালন করা হয় শহীদ দিবস।

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

নিউজ সোর্স : মমতার ভার্চুয়াল সমাবেশে ৫০ লাখ কর্মীর অংশগ্রহণ চায় তৃণমূল

Leave A Reply

Your email address will not be published.