বড় মেয়ের টিউমার, ছোটো মেয়ে অপরিণত: আসুন হাসানুজ্জামানের পাশে দাঁড়াই

- Advertisement -

রংপুর: সদর উপজেলার হরিদেবপুর ইউনিয়নের রতিরামপুর গ্রামের হাসানুজ্জামানের দুঃখের শেষ নেই। কারণ তার কন্যা অষ্টম শ্রেনির ছাত্রী আর্নিকা আক্তারের কিডনীর নিচে মেরুদণ্ডের মাঝে টিউমার হয়েছে। যা দ্রুত অপসরণ করা দরকার। মাত্র ৪ লাখ টাকা হলেই তার টিউমারটি অপসারণ করা সম্ভব।

অন্যদিকে হাসানুজ্জামানের সন্তান সম্ভবা স্ত্রী গত কয়েক দিন আগে নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে বাড়িতেই তার ৩য় সন্তান জন্ম দিয়েছে। কিন্তু কপাল পুড়লে যা হয়! বাচ্চাটি জন্ম নিয়েছে কিন্তু বাচ্চাটার নাভির একটু উপর থেকে নিচের অংশে তলপেটের চামড়া নাই। পেটের নাড়ী ভুড়িগুলো স্পষ্ট দেখা যায়।

একদিকে বড় কন্যা আর্নিকা আক্তারের অসুস্থ্যতা অন্যদিকে অপরিণত তলপেটের চামড়াহীন অবস্থায় জন্ম নেয়া নতুন শিশুটির চিৎকার। প্রায় ১৫ দিন যাবত ওই অবস্থায় বাড়িতেই আছে। টাকার অভাবে মেডিকেলে নিতে পারছে না। সবমিলিয়ে দিনমজুর পিতা হাসানুজ্জামান অসুস্থ্য দুই সন্তানকে নিয়ে পাগল হয়ে যাবার উপক্রম। কোন উপায় খুঁজে পাচ্ছে না।

পাঠক, হতভাগ্য হাসানুজ্জামানকে সহায়তা করতে পারেন আপনিও। তাকে সহায়তা পাঠাতে চাইলে ০১৭৯৪-৮৫৬১৮৩ এই বিকাশ নম্বরে কিংবা ০১০১১১০৯ সোনালী ব্যাংক ধাপ, রংপুর শাখার এই এ্যাকাউন্টে পাঠাতে পারেন। দেখুন! আপনার সংবেদনশীল মন কি বলে? আসুন ! হাসানুজ্জামানের পাশে দাঁড়াই।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.