ফেসবুকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পরিকল্পনামন্ত্রীর পাল্টাপাল্টি স্ট্যাটাস

ফেসবুকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পরিকল্পনামন্ত্রীর পাল্টাপাল্টি স্ট্যাটাস

সুনামগঞ্জ থেকে ছাতক পর্যন্ত প্রস্তাবিত রেললাইন নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের ভূমিকা বিস্মিত হয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। এ নিয়ে পরিকল্পনা মন্ত্রীর দপ্তর থেকে ফেসবুক স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন তার ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাস বলেন, সিলেটের স্থানীয় একটি পত্রিকায় প্রকাশ করা হয়েছে যে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানর সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সম্পর্কের বিরোধে সিলেটের অনেক উন্নয়ন ব্যাহত হচ্ছে। এমন খবর পড়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন তাদের দুজনের মধ্যে কোনো বিরোধ নেই। দুজনের সম্পর্কে ফাঁটল ধরাতে এমন প্রতিবেদন পত্রিকায় প্রকাশ করা হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখে পরিকল্পনামন্ত্রীও পাল্টা স্ট্যাটাস দেন।

রোববার দেওয়া এক স্ট্যাটাস অনুযায়ী, সুনামগঞ্জ থেকে ছাতক পর্যন্ত প্রস্তাবিত রেললাইন নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের ভূমিকায় বিস্মিত হয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেছেন, দুজনের মধ্যে দীর্ঘ ৫০ বছরের বন্ধুত্ব, একই সঙ্গে মন্ত্রিসভার সহকর্মী হয়েও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভূমিকা কিছুতেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। রোববার (২০ জুন) বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে ‘পরিকল্পনামন্ত্রীর দপ্তর’ফেসবুক পেজ থেকে এই স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে। স্ট্যাটাসের বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী ওয়াকিবহাল। তিনি বলেন, রেললাইন নির্মাণ নিয়ে যে জটিলতা তৈরি হয়েছে, সেটি সুরাহা হওয়া দরকার। পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমার সহকর্মী, তিনি চাইলে আমার সঙ্গে কথা বলতে পারতেন।

মান্নান আমার বন্ধু, মান্নানের সাথে আমার সম্পর্ক ৫০ বছরের অধিক। আমি এবং মান্নান সুখে দুঃখে সবসময়ই ছিলাম এবং আছি,…

Posted by Abdul Momen on Monday, June 14, 2021

এ নিয়ে অবশ্য ফেসবুকে প্রথম স্ট্যাটাসটি দিয়েছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। গত ১৪ জুন দেওয়া সেই স্ট্যাটাসে পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিখেছিলেন, ‘মান্নান আমার বন্ধু, মান্নানের সাথে আমার সম্পর্ক ৫০ বছরের অধিক। আমি এবং মান্নান সুখে–দুঃখে সব সময়ই ছিলাম এবং আছি, ভবিষ্যতেও আমৃত্যু থাকব বলেই আশা করি। দুঃখজনক যে সিলেটের একটি স্থানীয় সংবাদপত্রে দেখলাম আমার এবং মান্নানের মধ্যে নাকি দ্বন্দ্ব রয়েছে এবং এই দ্বন্দ্বের কারণে নাকি সিলেটের অনেক উন্নয়ন ব্যাহত হচ্ছে! কে বা কারা এই সংবাদটি প্রচার করছেন জানি না, তবে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। যে বা যারা এটি প্রচার করছেন, তারা হয়তোবা কোনো বিশেষ বা অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য করছেন। ফেসবুকে এই স্ট্যাটাসটির প্রয়োজন আছে বলে মনে করছি না, তবে একটি বিশেষ কারণে দিচ্ছি আর তা হলো আমার এবং মান্নানের স্থানীয় অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী রয়েছেন আর তাঁদের মধ্যে যাতে কোনো বিভ্রান্তির সৃষ্টি না হয়।’

It’s true Dr Momen and I have been friends for over 50 years now. But his writing a hasty DO to Railways Minister…

Posted by পরিকল্পনা মন্ত্রীর দপ্তর on Sunday, June 20, 2021

সেই স্ট্যাটাসের সূত্র ধরেই গতকালের স্ট্যাটাসটি দেওয়া হয় পরিকল্পনামন্ত্রীর দপ্তর থেকে। ফেসবুক পেজে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এটা সত্য যে ড. মোমেনের সঙ্গে আমার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক দীর্ঘ ৫০ বছরের। কিন্তু তিনি সুনামগঞ্জের পাঁচজন সংসদ সদস্যের পাশে রয়েছেন উল্লেখ করে রেলমন্ত্রীর কাছে যে আধা সরকারি পত্র (ডিও) দিয়েছেন, সেটি আমাকে বিস্মিত করেছে। তিনি যে পাঁচজন এমপির পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন, সেখানে একজন জাতীয় পার্টির এমপিও রয়েছেন। আব্দুল মোমেন ভালো করেই জানেন, আমিও (মান্নান) সুনামগঞ্জের একজন সংসদ সদস্য। সুনামগঞ্জের সঙ্গে ছাতকের রেললাইন নির্মাণ নিয়ে তিনি যেমন অবগত, ঠিক তেমনি বিষয়টি আমিও অবগত। আমি যতটুকু জানি, তাঁর বর্ণিল জীবনে তিনি কখনো সুনামগঞ্জে যাননি।সুনামগঞ্জে কখনো তাঁর পা পর্যন্ত পড়েনি। অথচ তিনি রেললাইন নির্মাণ নিয়ে একটি পক্ষের অবস্থান নিয়েছেন। অন্য কেউ হলে এই পরিস্থিতিতে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতেন। বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইতেন। কিন্তু আমাদের দীর্ঘ ৫০ বছরের বন্ধুত্ব একই সঙ্গে আমরা দুজনেই মন্ত্রিসভার সদস্য অথচ তিনি আমার সঙ্গে এ বিষয়ে এতটুকু যোগাযোগ করেননি। আমার সঙ্গে কথা না বলে অন্য পাঁচজন সংসদ সদস্যের পক্ষ নিয়ে রেলমন্ত্রীকে ডিও লেটার পাঠানো কিছুতেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।’

ইত্তেফাক/এনএ

নিউজ সোর্স : ফেসবুকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পরিকল্পনামন্ত্রীর পাল্টাপাল্টি স্ট্যাটাস

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.