পটকা ফুটানো নিয়ে তর্ক, নববধূকে তালাক!

পটকা ফুটানো নিয়ে তর্ক, নববধূকে তালাক!

সৈয়দপুরে পটকা ফুটানোকে কেন্দ্র করে বিয়ের আসর ভেস্তে গেছে। অবশেষে ৯৯৯-এ কল পেয়ে পুলিশ এসে বরপক্ষকে উদ্ধার করে এবং কাজী ডেকে কনেকে তালাক দেয় বর। উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের উত্তর সোনাখুলি দলবাড়ি পাড়ায় শনিবার (১৯ জুন) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, গত ২২ এপ্রিল উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে আরশাদুল ইসলামের বিয়ে রেজিস্ট্রি হয় স্থানীয় এক তরুণীর সঙ্গে।

গত শুক্রবার রাতে কন্যা বিদায়ের সময় বরপক্ষের লোকজন কনেপক্ষের মেয়েদের সামনে শুরু করে পটকাবাজি। একপর্যায়ে কনেপক্ষ বাধা দিলে বর আরশাদুল তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এভাবে উভয়পক্ষের বাগিবতণ্ডা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। দুটি মাইক্রোবাসসহ বরপক্ষকে সারা রাত আটকে রাখা হয়। No description available.পরদিন সরকারি জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল পেয়ে পুলিশ বরযাত্রীকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেয়। পরে জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে কনেকে তালাক দেওয়া হয়। সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খান সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ৯৯৯-এ কল পেয়ে বরপক্ষকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসজেড

নিউজ সোর্স : পটকা ফুটানো নিয়ে তর্ক, নববধূকে তালাক!

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.