তামাক নিয়ন্ত্রণে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের সাথে এসিডি’র মতবিনিময়

তামাকের অবৈধ প্রচারণা বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে রংপুর জেলা প্রশাসন

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইনের অধিকতর বাস্তবায়নে এবং তামাকের বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর অবৈধ বিজ্ঞাপন, প্রচারণা ও পুরস্কার-প্রণোদনা প্রদান বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে রংপুর জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ পদক্ষেপের কথা জানান রংপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. আসিব আহসান।

রংপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবং রাজশাহীর মানবাধিকার সংস্থা ‘এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’ ও ‘ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিড্স-সিটিএফকে’ এর সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মো. আরাফাত রহমান।

‘এসিডি’র মিডিয়া ম্যানেজার আমজাদ হোসেন শিমুলের উপস্থাপনায় মতবিনিময় সভায় রংপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শরীফ মুহম্মদ ফয়েজুল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সৈয়দ এনামুল কবির অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোসা. শুকরিয়া পারভীন, রংপুর সিভির সার্জন কার্যালয়ের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. কানিজ সাবিহা, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের স্যানেটারী ইন্সপেক্টর মো. আব্দুল কাইয়ুম, ‘সিটিএফকে’ এর গ্র্যান্ট্স ম্যানেজার আব্দুস সালাম মিয়া, ‘এসিডি‘র ডিরেক্টর (প্রোগ্রাম) শারমীন সুবরীনা ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো: আসিব আহসান বলেন, ‘পাবলিক প্লেসে যাতে ধূমপান কেউ না করতে পারে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে। তামাকের অবৈধ বিজ্ঞাপন অপসারণেও আমরা ব্যবস্থা নিতে পারি। আমরা ইতোমধ্যেই পাবলিক পরিবহন ও পাবলিক প্লেসে ধূমপান বন্ধে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছি। এছাড়া রংপুর জেলা থেকে তামাক কোম্পানির অবৈধ বিজ্ঞাপন অপসারণে সংশ্লিষ্ট কোম্পানিকে নোটিশ প্রদান করেছি। তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে আরও চিঠি ইস্যূসহ প্রয়োজনীয় সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হবে।’

সভায় রংপুরে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন লঙ্ঘনের বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন এসিডি’র প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. শাহীনুর রহমান। এসময় জেলা প্রশাসনের উদ্দেশ্যে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরা হয়। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো- তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট, কর্তৃপক্ষের দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করতে চিঠি প্রদান; পাবলিক প্লেসসমূহে সতর্কতা নোটিশ/ সাইনেজ অনুপস্থিত থাকলে কর্তৃপক্ষকে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসার ব্যবস্থা; বিজ্ঞাপন, প্রচারণা ও প্রদর্শনী বন্ধে জেলা প্রশাসনের মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করা’ প্রতি মাসে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা শিডিউলে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনকে অন্তভর্‚ক্ত করা; প্রধানমন্ত্রীর তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার বাস্তবায়নে গৃহিত পদক্ষেপসমূহে সহায়তা দান করা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.