চলতি অর্থবছরে রসিকে কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ৮’শ ৩১ কোটি

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক:
রংপুর সিটি করপোরেশনে (রসিক) চলতি অর্থ-বছরে ৮’শ ৩১ কোটি টাকা কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।

তিনি বলেছেন, জনগণ কর না দিলে, উন্নয়ন সম্ভব নয়। গত বছর ৭’শ ৫১ কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। আদায় হয়েছিলা ৬’শ ৩০ কোটি টাকা। এবার লক্ষ্যমাত্রা বাড়ানো হয়েছে। আমরা চাই সবাই সামর্থ্য ও সাধ্যমত কর প্রদান করুন।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) সকালে জেলা পরিষদ কমিউনিটি মিলনায়তনে কর অঞ্চল রংপুর আয়োজিত সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

RCC 1মেয়র মোস্তাফিজার রহমান বলেন, আপনার আমার দেয়া করের টাকাতেই উন্নয়ন হয়। সরকারের রাজস্ব খাত যত সমৃদ্ধ হবে, উন্নয়ন ততই ছড়িয়ে পড়বে। রংপুরের কাঙ্খিত উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় মন্ত্রীদের সহযোগিতা ছাড়া সম্ভব নয়। আমাদের উন্নয়নের জন্য আমাদেরকে চাইতে হবে। করদাতা বাড়াতে হবে।

RCC 3অনুষ্ঠানে রংপুর কর অঞ্চল কমিশনার মো. আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (আন্তর্জাতিক কর) মিজ্ আরিফা শাহানা, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল আলীম মাহমুদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত রহমান, রংপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর সহ-সভাপতি মঞ্জুর আহমেদ আজাদ, উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আনোয়ারা ফেরদৌসি পলি, মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি রেজাউল করিম মিলন, ট্যাকসেস বার এসোসিয়েশন রংপুর সভাপতি মাসুম খান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত কর কমিশনার শেখ মো. মনিরুজ্জামান।

RCC 2অতিথিরা বলেন, আয়কর মেলার উদ্দেশ্য কর আদায় করা নয়। বরং সকলকে কর প্রদানের ব্যাপারে সচেতন করা। সহযোগিতা করা। কর প্রদান করা আমাদের নাগরিক ও সাংবিধানিক দায়িত্বের একটি অংশ। বৎসরে নূন্যতম আড়াই লাখ টাকা আয় হলে নিয়মানুযায়ী কর দিতে হয়। কিন্তু আমরা আয়কর দেই না। দেশে প্রায় সাড়ে তিন কোটি মানুষের আয়কর দেয়ার সামর্থ্য রয়েছে। অথচ আয়কর প্রদান করে মাত্র ২২ লাখ মানুষ।

রংপুর কর অঞ্চল আয়োজিত সাত দিনের এই আয়কর মেলায় ১৫টি বুথের মাধ্যমে রিটার্ন দাখিল ও আয়কর প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। গাইবান্ধা জেলা ব্যতিত রংপুর বিভাগের প্রতিটি জেলা শহরে এবং ৫টি উপজেলায় উৎসবমুখর পরিবেশে মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

এরআগে গতকাল বুধবার রংপুর বিভাগের করদাতাদের মধ্য থেকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৫৬ জনকে সর্বোচ্চ ও দীর্ঘমেয়াদী করদাতার সম্মাননা সনদ ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.