লাশের একাংশ কুড়িগ্রামে, আরেক অংশ ময়মনসিংহে!

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক:
কুড়িগ্রামে উদ্ধার হওয়া লাশের পা ময়মনসিংহে উদ্ধার হওয়া হাত-পা-মাথা বিহীন লাশের হতে পারে বলে ধারনা করছে পুলিশ। উভয় লাশের অংশের ছবির সঙ্গে মিল থাকায় বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে ডিএনএ টেস্ট মিলে গেলে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি মাহফুজার রহমান।

এরআগে সোমবার সকালে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার বেলগাছা ইউনিয়নে একটি পুকুর পাড়ে পলিথিনে মোড়ানো দেহ বিচ্ছন্ন পা উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে এদিন ময়মনসিংহে একটি লাগেজের ভেতর থেকে হাত-পা ও মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ সদর থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মো. মহিবুল ইসলাম খান জানান, আমরা কুড়িগ্রামে উদ্ধার হওয়া পায়ের ছবির সঙ্গে ময়মনসিংহে উদ্ধার হওয়া মরদেহের ছবি মিলিয়ে দেখছি। প্রাথমিকভাবে উদ্ধার হওয়া পায়ের অংশের সঙ্গে ওই মরদেহের মিল থাকতে পারে। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। তিনি আরও বলেন, ‘উদ্ধার হওয়া পায়ের অংশ কীভাবে কুড়িগ্রামে আনা হয়েছে তা অনুসন্ধানেও কাজ শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।’

সদর থানা সূত্রে আরও জানা গেছে, ময়মনসিংহে উদ্ধার হওয়া খণ্ডিত দেহ পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় যে ধরনের উপকরণ দিয়ে বাঁধা ছিল, কুড়িগ্রামে উদ্ধার হওয়া পায়ের অংশটিও একই উপকরণ দিয়ে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি, পায়ের অংশ ময়মনসিংহে উদ্ধার হওয়া ব্যক্তির। তারপরও আমরা সেখান থেকে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা নিয়েছি। ময়মনসিংহ থেকে উদ্ধার হওয়া ব্যক্তির ডিএনএ নমুনার সঙ্গে উদ্ধার হওয়া পায়ের অংশের ডিএনএ নমুনার প্রতিবেদন মিলিয়ে দেখলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।’

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.