আরএমপির অভিযানে ইয়াবা-গাঁজা ব্যবসায়ীসহ গ্রেফতার ১৯

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক:
রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃক গতকাল শুক্রবার ইয়াবা ও গাঁজা ব্যবসায়ী ও পরোয়ানাভুক্ত আসামীসহ ১৯ জন গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ শনিবার সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি এন্ড মিডিয়া) আলতাফ হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়- রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতয়ালী থানা কর্তৃক কোতয়ালী থানাধীন ১৬ নং ওয়ার্ডের রংপুর মেডিকেল মোড়স্থ যাত্রী ছাউনির ভিতরে, কোতয়ালী থানা থেকে অনুমান ০৫ কি.মি, পশ্চিম দিক, ওয়ার্ড নং-১৬, জেএল নং- ৪৯, রংপুর সিটি কর্পোরেশন, রংপুর, হতে ৫ পিস ইয়াবাসহ আসামী মো. আরিফুল ইসলাম (৩০) (পিতা- মো. মকবুল হোসেন, সাং- রামপুরা, থানা- কোতয়ালী, আরপিএমপি, রংপুর) -কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। এদিন তার বিরুদ্ধে কোতয়ালী থানায় মামলা নং ৩৬(১) সারণী ১০ (ক) ধারায় মামলা রুজু করা হয়।

এদিকে কোতয়ালী থানা কর্তৃক কোতয়ালী থানাধীন ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র সংলগ্ন রাস্তার উপর থেকে ৫ পিস ইয়াবাসহ আসামী মো. মেহেদী হাসান (২৪) (পিতা- মো. গোলাম হায়দার, সাং- ধাপ কটকীপাড়া, থানা- কোতয়ালী, আরপিএমপি, রংপুর) -কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। কোতয়ালী থানায় মামলা নং ৩৬(১) সারণী ১০(ক) ধারায় মামলা রুজু করা হয়।

এছাড়াও কোতয়ালী থানা কর্তৃক কোতয়ালী থানাধীন টেক্সটাইল মোড়স্থ আর.কে রোডের পূর্বে জনৈক মন্টি মিয়ার পান দোকানের সামনে, কোতয়ালী থানা থেকে অনুমান ০৪ কি.মি, পশ্চিম দিক, ওয়ার্ড নং-১৭, জেএল নং- ৯৪, রংপুর সিটি কর্পোরেশন, রংপুর হতে ৭ পিস ইয়াবাসহ আসামী মো. রেজা হোসেন ওরফে বাপ্পী (২৮) (পিতা- মৃত আফতাব হোসেন, সাং- ধাপ কটকীপাড়া, রংপুর মহানগর, রংপুর) কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। কোতয়ালী থানায় মামলা নং ৩৬ (১) সারণী ১০(ক) ধারায় মামলা রুজু করা হয়।

অপর অভিযানে কোতয়ালী থানা কর্তৃক কোতয়ালী থানাধীন বাবুপাড়া উত্তর সাজাপুর হতে ১০ পিস ইয়াবাসহ আসামী মো. মুসা মিয়া (৩৫), পিতা- মৃত ইউসুফ আলী, মাতা- মোছাঃ রওশনারা বেগম, সাং- উত্তর সাজাপুর বাবুপাড়া, থানা- কোতয়ালী, আরপিএমপি, রংপুর-কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। কোতয়ালী থানায় মামলা নং ৩৬(১) সারণী ১০(ক) ধারায় মামলা রুজু করা হয়।

অপরদিকে পরশুরাম থানা পুলিশ কর্তৃক পরশুরাম থানাধীন ০৪ নং ওয়াডের্র আমাশু মৌজাস্থ মো. নাজির হোসেন (নয়ন) এর আমাশু কুকরুল বাজারের মোবাইল সার্ভিসিং দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর। থানা হইতে দূরত্ব অনুমান ০৪ কিলোমিটার, দিক-পূর্ব, জেএল-৬৪, ওয়ার্ড-০৪, সিটি কর্পোরেশন, রংপুর হতে ৩০ গ্রাম গাঁজাসহ ১। মো. শাওন মিয়া ওরফে আহসান হাবিব (২৩), পিতা-মৃতঃ আলম মিয়া, ওরফে মাটিয়া পুলিশ, ২। মো. হোসেন আলী ওরফে বাবু (২৫), পিতা-মো. আমিনুল ইসলাম, উভয় সাং-আমাশু কুকরুল (পূর্বপাড়া), থানা-পরশুরাম, মহানগর রংপুর-কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। পরশুরাম থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) সারণীর ১৯(ক)/৪১ ধারায় মামলা রুজু করা হয়।

RMP2 1অন্যদেকে হারাগাছ থানা পুলিশ কর্তৃক হারাগাছ থানাধীন বেনুঘাট মাঝাপাড়া গ্রামস্থ জনৈক দিনেশ, পিতা রমনী কান্ত এর মুদির দোকানের সামনে পাঁকা রাস্তার উপর হতে ২০ গ্রাম গাঁজাসহ আসামী মো. আশিক আলী (৩০), পিতা- মৃত আ. ছাত্তার, স্থায়ী: গ্রাম- পরশুরাম (চিলার ঝাড়) , থানা- পরশুরাম, রংপুর-কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। হারাগাছ থানা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) সারণীর ১৯(ক)/৪১ ধারায় মামলা রুজু করা হয়।

এছাড়াও গতকাল রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের আওতাধীন থানাসমূহ কর্তৃক বিভিন্ন মামলায় এবং গ্রেফতারী পরোয়ানাভূক্ত কোতয়ালী থানায়-৬ জন, তাজহাট থানায়-৬ জন, মাহিগঞ্জ থানায়-১ জন, হারাগাছ থানায়-১ জন, পরশুরাম থানা-৪ এবং হাজিরহাট থানা-১ জনসহ মোট-১৯ জন আসামীকে গ্রেফতারপূর্বক বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়।

গতকাল রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ (উত্তর ও দক্ষিণ) কর্তৃক সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ এর আওতায় আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ২২৮ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.