আজও একাদশে থাকছেন ‘প্রতিভাবান’ লিটন?

আজও একাদশে থাকছেন ‘প্রতিভাবান’ লিটন?

লিটন দাস, বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে আলোচিত নাম! অবশ্য পারফরম্যান্সের জন্য নয়, বরং ধারাবাহিকভাবে অধারাবাহিক ব্যাটিং সামর্থ্য প্রমাণের জন্য। নিয়মিত অফফর্মে থাকা সত্ত্বেও দেশের ক্রিকেটে ‘প্রতিভাবান’ ট্যাগলাইন দিয়ে ম্যাচের পর ম্যাচের সুযোগ পেয়ে যাচ্ছেন। যা বজায় আছে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও। এখন পর্যন্ত পাঁচটি ম্যাচ খেলে প্রতিটিতেই ব্যর্থ। শুরুতে আউট হয়ে দলকেও চাপে ফেলে আসছেন। যেটি থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না বাংলাদেশ।

অবশ্য পুরো ক্যারিয়ার জুড়েই এমন অধারাবাহিক লিটন। ২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় তার। ইতিমধ্যে খেলে ফেলেছেন ৬ বছরেরও বেশি সময়। সাদা পোশাকে নিজের গুরুত্ব প্রমাণ করতে পারলেও রঙিন পোশাকে তিনি অনুজ্জল। এখন পর্যন্ত ৪৭টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন লিটন। ৮৯.৭ স্ট্রাইকরেট এবং ৩০.৩ গড়ে তার রান ১৩৩৫। যা আধুনিক ক্রিকেটের সঙ্গে মোটেই মানানসই নয়।

No description available.

সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম সংস্করণ টি-টোয়েন্টিতে তার অবস্থা আরও ভয়াবহ। এখন পর্যন্ত ৪১টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। ১২৬.৭ স্ট্রাইকরেট এবং ১৮.৬ গড়ে রান মাত্র ৭৪৬। একজন ওপেনার ব্যাটার হিসেবে এই পরিসংখ্যান মোটেও দলে সুযোগ পাওয়ার যোগ্য নয়। আর চলতি বছর লিটনের পারফরম্যান্স সবচেয়ে নাজুক। ১৩টি টি-টোয়েন্টি খেলে গড় মাত্র ১০.৮। আর স্ট্রাইকরেট ১০১.৪। অথচ অনেক টেইলএন্ডারের ব্যাটিং গড় আরও বেশি।

এতো গেলো ব্যাটিংয়ের কথা। বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা ফিল্ডার বলা হয়ে থাকে লিটনকে। কিন্তু ব্যাটিংয়ে বাজে পারফরম্যান্সের প্রভাব সেখানেও পড়েছে। যার খেসারত এরই মধ্যে বাংলাদেশ দলকে দিতে হয়েছে। গত ২৪ অক্টোবর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে দুটো গুরুত্বপূর্ণ ক্যাচ মিস করেছেন তিনি। বিশ্লেষকদের মতে, বাংলাদেশের পরাজয়ের পেছনে ওই দুটো ক্যাচ টার্নিং পয়েন্ট ছিল।

শুরুতেই আউট লিটন, তিন উইকেট হারিয়ে চাপে বাংলাদেশ

একজন আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদের সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ হলো তার বডি ল্যাঙ্গুয়েজ। পারফরম্যান্স কেমন হবে, তা বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখেও অনেকটা অনুমান করা যায়। কিন্তু বর্তমানে লিটন দাসের মানসিক অবস্থা এতটাই খারাপ যে, তা তার বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখেই বুঝা যায়। যে কেউই তাকে দেখে বলবে, বাজে পরফরম্যান্সের কারণে লিটনের আত্মবিশ্বাস একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। যার ফল ওই ক্যাচ মিস দুটো।

দলে একজন ওপেনারের কাজ হলো- দারুণ শুরু এনে দেওয়া। যেটির ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী ব্যাটাররা রানের চাকা সচল রেখে প্রতিপক্ষের সামনে একটি চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করাবেন। কিন্তু প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই শুরুতে উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসছেন তথাকথিত ‘প্রতিভাবান’ লিটন দাস। যার প্রভাবে পরবর্তী ব্যাটারদের ওপর চাপ পড়ছে এবং এতে করে দলও একটি চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করাতে পারছে না। ফলে কোনো রকমের লড়াই ছাড়াই ম্যাচ হেরে যেতে হচ্ছে।

শ্রীলঙ্কা ম্যাচের পরই তাকে বাদ দেওয়ার প্রশ্ন অনেক বেশি জোরালো হয়। কিন্তু সবার সমালোচনা ও পরামর্শকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও লিটনকে মাঠে নামায় টিম ম্যানেজম্যান্ট। যার ফল দলীয় ১৪ রানের মাথায় উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসা। বাংলাদেশ দলও অত্যন্ত বাজেভাবে ম্যাচটি হেরেছে।

আজ (২৯ অক্টোবর) টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে বাঁচা-মারার লড়াইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচ জয়ের কোনো বিকল্প নেই। আর হারলে সুপার টুয়েলভ থেকে প্রথম দল হিসেবে বিদায় নেবে লাল-সবুজ বাহিনী। ম্যাচটি শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, আজও একাদশে থাকছেন লিটন? নাকি তাকে বাদ দিয়ে নতুন শুরুর আশায় টাইগাররা?

ইত্তেফাক/টিএ

নিউজ সোর্স : আজও একাদশে থাকছেন ‘প্রতিভাবান’ লিটন?

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.