ডিমলায় গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

- Advertisement -

নীলফামারী প্রতিনিধি:
নীলফামারীর ডিমলায় তাওফিক রহমান (১৮) নামে এক যুবক শয়ন ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার বাবুর হাট সদরের মেডিকেল মোড় সংলগ্ন প্রভাষক পাড়ার নিজ বাড়ির শয়ন ঘরে তিনি আত্মহত্যা করেন। নিহত যুবক একই এলাকার মোস্তাফিজুর রহমান মামুনের ছেলে।

পুলিশ ও পরিবার সুত্রে জানা গেছে- যুবক তাওফিক দীর্ঘ এক বছর যাবত মানসিক রোগে ভুগলেও নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তেন। ঘটনার দিন মাগরিবের আযানের পর সন্ধ্যায় তাওফিকের মা তানজিনা বেগম ছেলে নামাজ পড়েছে কি-না তা জানতে ছেলের ঘরে গিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় ছেলেকে ঝুলন্ত দেখে চিৎকার করতে থাকেন। পরে তার আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে তাওফিকের গলার ফাঁস কেটে তাকে সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক যুবক তাওফিককে মৃত ঘোষণা করেন।

ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের পরিবারসহ এলাকাবাসীর কোনো অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। একই ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা নং-২৬,তারিখ-৪/১১/২০১৯ইং দায়ের করা হয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.